ইনিস্টিটিউট অব চার্টার্ড একাউন্টেন্টস অব বাংলাদেশ

ইনিস্টিটিউট অফ চার্টার্ড একাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশ (আইসিএবি) হলো বাংলাদেশে পেশাজীবী হিসাববিজ্ঞানীদের জাতীয় সংস্থা। এটিই বাংলাদেশে একমাত্র প্রতিষ্ঠান যেটির সনদপ্রাপ্ত হিসাববিজ্ঞানী উপাধি দেওয়ার অধিকার আছে। এই প্রতিষ্ঠানটিতে প্রায় ১,৯৩৮ জন সদস্য[২] রয়েছে।

ইনিস্টিটিউট অফ চার্টার্ড একাউন্টেন্টস অফ বাংলাদেশ
ইনিস্টিটিউট অব চার্টার্ড একাউন্টেন্টস অব বাংলাদেশের লোগো.jpg
সংক্ষেপেআইসিএবি (ICAB)
মূলনীতিসত্য ন্যায় প্রগতি
গঠিত১৯৭৩
ধরনপেশাজীবী সংগঠন
উদ্দেশ্যহিসাববিজ্ঞান পেশার উন্নতি, সমৃদ্ধি ও সমন্বয় সাধনে নেতৃত্ব দান
সদরদপ্তরসিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ
অবস্থান
  • ঢাকা-১২১৫
যে অঞ্চলে কাজ করে
 বাংলাদেশ
সদস্যপদ
১,৯৩৮ (২০১৮)
দাপ্তরিক ভাষা
ইংরেজি
প্রেসিডেন্ট
এ এফ নেসার উদ্দিন এফসিএ[১]
প্রধান অঙ্গ
কাউন্সিল
অনুমোদনআইএফআইসি, আইএএসবি, সিএপিএ, এসএএফএ
ওয়েবসাইটwww.icab.org.bd

প্রতিষ্ঠা ও প্রশাসনিক মন্ত্রণালয়সম্পাদনা

এই প্রতিষ্ঠানটি ১৯৭৩ সালে পাশকৃত বাংলাদেশ চার্টার্ড একাউন্ট্যান্টস অধ্যাদেশ (১৯৭৩-এ রাষ্ট্রপতির দ্বিতীয় অধ্যাদেশ) অনুযায়ী প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়টি এ সংস্থার প্রশাসনের দায়িত্বে নিয়োজিত।[৩] বাংলাদেশে হিসাববিজ্ঞান পেশার গুনগত মান, পেশাগত নৈতিকতা, উন্নয়ন, প্রশিক্ষন, প্রসার ও রক্ষনাবেক্ষনে প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘ চল্লিশ বছর ধরে কাজ করে আসছে।

লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যসম্পাদনা

ইনস্টিটিউট অফ চার্টার্ড একাউন্ট্যান্টস অফ বাংলাদেশ-এর মূল লক্ষ্য জটিল বৈশ্বিক অর্থনীতির প্রেক্ষিতে বাংলাদেশের আর্থিক অবস্থা অণুধাবন এবং তদনুযায়ী প্রতিষ্ঠানের সদস্যদেরকে (সনদপ্রাপ্ত হিসাববিজ্ঞানী) প্রস্তুত করে তোলা। এ জন্য এ প্রতিষ্ঠানটি কিছুটা দীর্ঘ তবে অত্যন্ত ফলপ্রসূ শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে উচ্চতর দক্ষতাসম্পন্ন চার্টার্ড একাউন্ট্যান্ট তৈরি করে থাকে। আইসিএবি কর, ব্যবসায় সংক্রান্ত আইন ও তৎসংশ্লিষ্ট ব্যাপারে সরকারকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান এবং পারস্পারিক সহযোগীতার পরিবেশ সৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এছাড়াও এ প্রতিষ্ঠানটি দক্ষ চার্টার্ড একাউন্ট্যাটের ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণ এবং বিবিধ গবেষণা ও সুগভীর অণুধ্যান পরিচালনা করে সেগুলো হিসাববিজ্ঞান পেশার সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে প্রয়োগ করে থাকে।[৪]

আইসিএবি-এর মূল উদ্দেশ্য হলো বাংলাদেশের হিসাববিজ্ঞান পেশার উন্নতি, সমৃদ্ধি ও সমন্বয় সাধনে নেতৃত্ব দান, যাতে করে এ পেশায় নিয়োজিত ব্যক্তিবর্গ জনকল্যাণে উচ্চ মানের সেবা প্রদান করতে পারে।[৫]

আঞ্চলিক কার্যালয়সমূহসম্পাদনা

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা ও বন্দর নগরী চট্টগ্রামে আইসিএবি-এর আঞ্চলিক কার্যালয় রয়েছে। এছাড়া, যুক্তরাজ্যের লন্ডন ও কানাডার অন্টারিওতে এ সংস্থাটির একটি করে কার্যালয় বর্তমান আছে।[৬]

সদস্যপদ ও বিভিন্ন চুক্তি স্বাক্ষর সংক্রান্ত তথ্যাদিসম্পাদনা

এ প্রতিষ্ঠানটি নিম্নোক্ত সংস্থাগুলির সদস্য:[৭]

এছাড়াও এ প্রতিষ্ঠানটি ২৬শে অক্টোবর, ২০১০ তারিখে ইনস্টিটিউড অফ চার্টাড একাউন্ট্যান্টস অফ ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে্‌র (The Institute of Chartered Accountants of England and Wales or ICAEW) সাথে একটি সমঝোতার স্মারকলিপি (Memorandum of Understanding) স্বাক্ষর করেছে।[১৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "President and Vice-presidents"। ICAB। সংগ্রহের তারিখ ১৯ মার্চ ২০১৯ 
  2. "Members and Firms Statistics"। ICAB। ১৯ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ মার্চ ২০১৯ 
  3. "Order under which ICAB established and ICAB's Administrative Ministry)"। ICAB। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৪ 
  4. "ICAB's Vision"। ICAB। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৪ 
  5. "ICAB's Mission Statement"। ICAB। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৪ 
  6. "ICAB - A BRIEF OUTLINE (Regional Offices)"। ICAB। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৪ 
  7. "Whom We Work With"। ICAB। ১ জুলাই ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৪ 
  8. "IFAC Membership"। ICAB। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৪ 
  9. "IASB-IFRS Foundation"। ICAB। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৪ 
  10. "CAPA Membership"। ICAB। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৪ 
  11. "SAFA Membership"। ICAB। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৪ 
  12. "Members – Asia-Oceania Tax Consultants' Association -"। AOTCA। ২৫ এপ্রিল ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৪ 
  13. "ICAEW signs MoU with the Institute of Chartered Accountants of Bangladesh"। ICAEW। ৭ ডিসেম্বর ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৪ 

বহি:সংযোগসম্পাদনা