ইউ.এম.সি. জুট মিলস লিমিটেড

ইউএমসি জুট মিলস লিমিটেড বাংলাদেশের নরসিংদী জেলায় অবস্থিত একটি ভারী শিল্প প্রতিষ্ঠান।[১] এটি রাষ্ট্রায়ত্ব বাংলাদেশ পাটকল কর্পোরেশনের অধীনস্থ ২৬টি মিলের মধ্যে ঢাকা অঞ্চলের অধীনে থাকা ৭টি প্রতিষ্ঠানের[২] মধ্যে অন্যতম প্রধান পাটকল।[৩] মুলতঃ ইউনাইটেড জুট মিল, মেঘনা জুট মিল ও চাঁদপুর জুট মিল - এই তিনটি পৃথক মিলের সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে এই প্রতিষ্ঠানটি।[১]

ইউনাইটেড - মেঘনা - চাঁদপুর জুট মিলস লিমিটেড
UMC Jute Mills Ltd.
স্থানীয় নাম
ইউএমসি জুট মিল
ধরনসরকারি
শিল্পপাট শিল্প
বস্ত্র শিল্প
প্রতিষ্ঠাকালইউনাইটেড - ১৯৬২; ৬০ বছর আগে (1962),
মেঘনা - ১৯৬৬; ৫৬ বছর আগে (1966),
চাঁদপুর - ১৯৬৭; ৫৫ বছর আগে (1967)
সদরদপ্তর
সাটিরপাড়া, সদর, নরসিংদী
,
বাণিজ্য অঞ্চল
বিশ্বব্যাপী
পণ্যসমূহকাপড়, থলে, দড়ি
মালিকবাংলাদেশ পাটকল করপোরেশন

অবস্থানসম্পাদনা

বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চলের ঢাকা বিভাগের নরসিংদী জেলার সদর উপজেলার সাটিরপাড়ায় এই শিল্প প্রতিষ্ঠানটি অবস্থিত।[৪]

ইতিহাসসম্পাদনা

এই শিল্প প্রতিষ্ঠানটির ইউনাইটেড মিলটি ১৯৬২ সালে, মেঘনা মিলটি ১৯৬৬ সালে ও চাঁদপুর মিলটি ১৯৬৭ সালে স্থাপিত হয়[১] এবং বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭২ সালে এটিকে জাতীয়করণ করা হয়।[৪]

অবকাঠামোসম্পাদনা

এই বৃহদায়তন শিল্প-কমপ্লেক্সটি ৫২.২৯১২ একর জায়গা জুড়ে অবস্থিত।[৪]

কর্মরত শ্রমিক ও ব্যবস্থাপনাসম্পাদনা

এই প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশ পাটকল করপোরেশনের অধীনস্থ হওয়ায় এটি বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতির আদেশ নং ২৭, ১৯৭২ অনুযায়ী অতিরিক্ত সচিব পদমর্যাদার ১ জন চেয়ারম্যান এবং যুগ্ম সচিব পদমযাদার অনূর্ধ্ব ৫ জন পরিচালকের সমন্বয়ে গঠিত একটি পরিচালনা পর্ষদের নিয়ন্ত্রণে পরিচালিত হয়।[৫] বর্তমানে এখানে ৬ হাজারেরও অধিক কর্মী নিয়োজিত রয়েছে।[১]

উৎপাদন ক্ষমতাসম্পাদনা

এই মিলে রয়েছে ৩৭৪ হেসিয়ান ও ৪৬৫ সেকিং লুম এবং গড়ে এর মাসিক উৎপাদন ক্ষমতা ৪৪৯ মেট্রিক টন হেসিয়ান ও ১,৬৫৫ মেট্রিক টন সেকিং লুম।[৪]

উৎপাদিত পণ্যসম্পাদনা

বাণিজ্যসম্পাদনা

১০০ ভাগ রপ্তানিমুখী এই প্রতিষ্ঠান থেকে প্রতিবছর প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা আয় হয়।[১]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "COMPANY PROFILES OF MEMBERS : Bangladesh Jute Mills Limited"। মেট্রোপলিটন চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, ঢাকা (MCCI)। ৬ মার্চ ২০১৮। ১৭ জুন ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৯ 
  2. "জনবল সংকটে চট্টগ্রামের ১০ রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল"দৈনিক যুগান্তর। ৬ মার্চ ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৯ 
  3. "রাষ্ট্রায়ত্ত ২৬ পাটকল আধুনিকায়ন করবে চীন"দৈনিক বণিক বার্তা। ২০ আগস্ট ২০১৪। ২০১৯-০৬-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৯ 
  4. "ইউ.এম.সি. জুট মিলস্ লিঃ"। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ১৫ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৯ 
  5. "বাংলাদেশ পাটকল করপোরেশন"। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৯ 

বহি:সংযোগসম্পাদনা