আমু দরিয়া

উজবেকিস্তানের নদী

আমু দরিয়া, (আমুদরিয়া (তাজিক: Амударё - আমুদরিয়ো; ফার্সি: آمودریا‎‎ - Âmudaryâ; উজবেক: Amudaryo, ঐতিহাসিকভাবে এর ল্যাটিন নাম অক্সাস বা গ্রীক Ὦξος দ্বারা পরিচিত)[২] মধ্য এশিয়ার দীর্ঘতম নদী। ভাখশপঞ্জ নদীর সম্মিলিত স্রোতধারায় তাজিকিস্তান ও আফগানিস্তানের সীমান্তে তিগোভায়া বালাকা প্রাকৃতিক রিজার্ভে এটি গঠিত হয় এবং সেখান থেকে উত্তর-পশ্চিম মুখী প্রবাহিত হয়ে আরল সাগরের দক্ষিণদিকে পতিত হয়। প্রাচীনকালে নদীটিকে বৃহত্তর ইরান ও তুয়ারান সীমানা বলে গণ্য করা হতো। [৩]

আমু দরিয়া
Oxus, Jayhoun, də Āmu Sind, Vaksu, Amu River
Amudaryasunset.jpg
তুর্কমেনিস্তান থেকে আমু দরিয়ার দিকে তাকিয়ে
Aral Sea watershed.png
আরাল সাগরের চারপাশের এলাকার মানচিত্র। আরাল সাগরের সীমানা গ. ২০০৮. আমু দরিয়া ড্রেনেজ অববাহিকা কমলা রঙে এবং সির দরিয়া অববাহিকা হলুদে।
অন্য নামOxus, Jayhoun, də Āmu Sind, Vaksu, Amu River
Countries
RegionCentral Asia
অববাহিকার বৈশিষ্ট্য
মূল উৎসPamir River/Panj River
Lake Zorkul, Pamir Mountains, Tajikistan
৪,১৩০ মি (১৩,৫৫০ ফু)
৩৭°২৭′০৪″ উত্তর ৭৩°৩৪′২১″ পূর্ব / ৩৭.৪৫১১১° উত্তর ৭৩.৫৭২৫০° পূর্ব / 37.45111; 73.57250
২য় উৎসKyzyl-Suu/Vakhsh River
Alay Valley, Pamir Mountains, Kyrgyzstan
৪,৫২৫ মি (১৪,৮৪৬ ফু)
৩৯°১৩′২৭″ উত্তর ৭২°৫৫′২৬″ পূর্ব / ৩৯.২২৪১৭° উত্তর ৭২.৯২৩৮৯° পূর্ব / 39.22417; 72.92389
মোহনাAral Sea
Amudarya Delta, Uzbekistan
২৮ মি (৯২ ফু)
৪৪°০৬′৩০″ উত্তর ৫৯°৪০′৫২″ পূর্ব / ৪৪.১০৮৩৩° উত্তর ৫৯.৬৮১১১° পূর্ব / 44.10833; 59.68111
অববাহিকার আকার৫,৩৪,৭৩৯ কিমি (২,০৬,৪৬৪ মা)
উপনদী
প্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য
দৈর্ঘ্য২,৬২০ কিমি (১,৬৩০ মা)
নিষ্কাশন
  • সর্বনিম্ন হার:
    ৪২০ মি/সে (১৫,০০০ ঘনফুট/সে)
  • গড় হার:
    ২,৫২৫ মি/সে (৮৯,২০০ ঘনফুট/সে)[১]
  • সর্বোচ্চ হার:
    ৫,৯০০ মি/সে (২,১০,০০০ ঘনফুট/সে)


তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Daene C. McKinney (১৮ নভেম্বর ২০০৩)। "Cooperative management of transboundary water resources in Central Asia" (PDF)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-১০-০৩ 
  2. Ptolemaeus, Geography, §6.10.1
  3. B. Spuler, Āmū Daryā, in Encyclopædia Iranica, online ed., 2009