আমিই মিসির আলি

হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস

হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্ট একটি চরিত্রগুলোর মধ্য মিসির আলি অন্যতম। মিসির আলি কাহিনীগুলো রহস্যমাত্রিক।[১] মিসির আলি সম্পর্কিত বইগুলোর মধ্যে আমিই মিসির আলি ১২ তম।

আমিই মিসির আলি
আমিই মিসির আলি উপন্যাসের প্রচ্ছদ
আমিই মিসির আলি উপন্যাসের প্রচ্ছদ
লেখকহুমায়ুন আহমেদ
দেশ বাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
ধারাবাহিকমিসির আলি
মুক্তির সংখ্যা
১২
বিষয়রহস্য
ধরনউপন্যাস
প্রকাশিতবইমেলা ২০০০
প্রকাশকঅন্যপ্রকাশ, ৩৮/২ক বাংলাবাজার ঢাকা।
প্রকাশনার তারিখ
ফেব্রুয়ারি ২০০০
মিডিয়া ধরনছাপা (শক্তমলাট)
পৃষ্ঠাসংখ্যা৯৫
আইএসবিএন৯৮৪ ৮১৬০ ১২১ ৬
পূর্ববর্তী বইতন্দ্রাবিলাস 
পরবর্তী বইবাঘবন্দি মিসির আলি 

২০০০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বই মেলায় অন্যপ্রকাশ প্রকাশনী হতে বইটি প্রথম প্রকাশিত হয়। [২]

চরিত্রসমূহসম্পাদনা

  • মিসির আলি
  • মাহাবা বেগম লিলি[৩]
  • এস. সুলতান হক – লিলির স্বামী
  • বরকত – লিলিদের বাড়ির দারোয়ান
  • অশ্বিনী রায়  – লিলিদের বাড়ির আদি মালিক ও সিরিয়াল কিলার
  • সালমা  – স্যাম্পল নাম্বার ৭

কাহিনীসংক্ষেপসম্পাদনা

মিসির আলির টেকনাফ বেড়াতে যাওয়ার কথা থাকলেও লিলির স্বামীর টোপ গিলে তিনি চলে গেলেন এস.সুলতান হকের বাড়িতে। সেখানে গিয়ে সামান্য অভিভূত হলেন কিন্তু সেখানে তাকে আটকে রাখা হল। তিনিই ছিলেন সুলতানের গবেষণার সাবজেক্ট। মিসির আলিকে ভয় দেখানোর জন্য সালমা নামের এক পনের-ষোল বছর বয়সী কিশোরীকে বলি দেওয়ার ব্যবস্থা নেওয়া হয়। তবে মিসির আলি তাকে বাঁচানোর চেষ্টা শুরু করেন।

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Book Review:" Mysterious Misir Ali "thedailystar.net (ইংরেজি ভাষায়)। দ্যা ডেইলি স্টার। সংগ্রহের তারিখ ০৪ জুলাই ২০০৬  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য), Tanvir Hafiz, The Daily Star, 2006
  2. "আমিই মিসির আলি (মিসির আলি #12)"গুডরিডস। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৭ 
  3. পৃষ্ঠাঃ ১৭ "আমিই মিসির আলি", হুমায়ূন আহমেদ।