আবু সাইয়িদ

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ

অধ্যাপক আবু সাইয়িদ (জন্ম: ১ নভেম্বর ১৯৪৩) একজন বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ, লেখক ও গবেষক,মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, সংবিধান প্রণয়ন কমিটির সর্বকনিষ্ঠ সদস্য ও সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী; তিনি পাবনা ৮পাবনা ১ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন।[১][২]

অধ্যাপক ডক্টর

অধ্যাপক আবু সাইয়িদ
Prof. Dr. Abu Sayeed 24 November 1996.jpg
১৯৯৬ সালে অধ্যাপক ড. আবু সাইয়িদ
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের
সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
২৩ জুন ১৯৯৬ – ১৬ জুলাই ২০০১
পূর্বসূরীনাজমুল হুদা
উত্তরসূরীএম শামসুল ইসলাম
পাবনা-৮ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
৭ মার্চ ১৯৭৩ – ৬ নভেম্বর ১৯৭৬
প্রধানমন্ত্রীশেখ মুজিবুর রহমান
পাবনা-১ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
১২ জুন ১৯৯৬ – ১৬ জুলাই ২০০১
পূর্বসূরীমতিউর রহমান নিজামী
উত্তরসূরীমতিউর রহমান নিজামী
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1943-11-01) ১ নভেম্বর ১৯৪৩ (বয়স ৭৭)
শালিখা পাড়া , বেড়া উপজেলা,পাবনা জেলা বাংলাদেশ
রাজনৈতিক দলগণফোরাম
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
প্রাক্তন শিক্ষার্থীরাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়
পাবনা এডওয়ার্ড কলেজ
বেড়া বিবি পাইলট হাই স্কুল

জন্ম ও প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

অধ্যাপক আবু সাইয়িদ ১ নভেম্বর ১৯৪৩ সালে পাবনা জেলার বেড়া উপজেলার শালিখা পাড়াতে জন্মগ্রহণ করেন। ২০১৩ সালে অধ্যাপক আবু সাইয়িদ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন তার পিএইচডি গবেষণার বিষয় ছিল "ইন্ডিপেন্ডেন্স অফ বাংলাদেশ: এ ডিপলোমেটিক ওয়ার" (বাংলাদেশের স্বাধীনতা: একটি কূটনৈতিক যুদ্ধ)।[৩]

রাজনৈতিক ও কর্মজীবনসম্পাদনা

অধ্যাপক ড.আবু সাইয়িদ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও রাকসু ভিপি ছিলেন।১৯৭০ সালের পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের নির্বাচনে তিনি সাঁথিয়া থানা - বেড়া থানা – সুজানগর থানা থেকে এম.এন.এ নির্বাচিত হন । ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সাত নম্বর সেক্টরে উপদেষ্টা ও ক্যাম্প ইনচার্জ ছিলেন। ১৯৭২ সালে গঠিত ৩৪ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশের সংবিধান প্রণয়ন কমিটির সর্বকনিষ্ঠ সদস্য ছিলেন।[৩] এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ মিল্কভিটার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সার্ক -এর তথ্য বিষয়ক কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান।

১৯৭৩ সালের প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে তৎকালীন পাবনা-৮ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি।[১] ১৯৭৫ সালে তিনি শেখ মুজিবুর রহমানের বাকশাল সরকার কর্তৃক পাবনা জেলার গভর্নর নিযুক্ত হন। অধ্যাপক আবু সাইয়িদ আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ছিলেন।

১২ জুন ১৯৯৬ সালের সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে পাবনা-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। সপ্তম জাতীয় সংসদে তিনি তথ্য প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[২] ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সন পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তৎকালীন তথ্য প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক আবু সাইয়িদ-এর পরিকল্পনা ছিল সাঁথিয়া -বেড়া নির্বাচনী এলাকার বৈপ্লুবিক রূপান্তর ঘটাবেন। হয়েছিলও । থানার সাথে ইউনিয়ন , ইউনিয়ন -এর সাথে গ্রামের সংযোগ তৈরি করা হয়। অবকাঠামো উন্নয়নের এই দৃষ্টান্ত তৎকালীন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোহাম্মদ জিল্লুর রহমান (পরবর্তী সময় রাষ্ট্রপতি) মহান সংসদে দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে স্বীকার করেছিলেন।

তিনি ১৯৯১ সালের পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাকশালের প্রার্থী হিসেবে, ২০০১ সালের অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে, ২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ও ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গণফোরাম থেকে পাবনা-১ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে পরাজিত হন। [৪]

গ্রন্থসম্পাদনা

অধ্যাপক আবু সাইয়িদের বইয়ের মধ্যে উল্লেখযোগ্য: ফ্যাক্টস্ এন্ড ডকুমেন্টস: বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড, মেঘের আড়ালে সূৰ্য, ছোটদের বঙ্গবন্ধু, বঙ্গবন্ধুর দ্বিতীয় বিপ্লব, আঘোষিত যুদ্ধের ব্ল-প্রিন্ট, ব্রুটাল ক্রাইমস্, বাংলাদেশের স্বাধীনতা: যুদ্ধের আড়ালে যুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধ: সিক্রেট ডিপ্লোম্যাসি, মুক্তিযুদ্ধ: উপেক্ষিত গেরিলা, জেনারেল জিয়ার রাজত্ব, সাধারণ ক্ষমা ঘোষণার প্রেক্ষিত ও গোলাম আযম, বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের ঐতিহাসিক রায়, বাংলাদেশের গেরিলা যুদ্ধ, যুদ্ধাপরাধ: প্রেক্ষিত বাংলাদেশ, বাংলাদেশ থ্রেট অব ওয়ার, একাত্তরে বন্দী মুজিব: পাকিস্তানের মৃত্যু যন্ত্রণা, সমাজ বদলে বঙ্গবন্ধুর ব্ল-প্রিন্ট, মুক্তিযুদ্ধের দলিল লণ্ডভণ্ড এবং অতঃপর, বাংলাদেশের স্বাধীনতা: কুটনৈতিক যুদ্ধ, ইতিহাসের দায়ভার ও একজন আদুরী, তোমার আলোকে রহিব জাগিয়া, যেভাবে স্বাধীনতা পেলাম (২০২১)।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "১ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. "৭ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. "Prof Abu Sayeed attains PhD"দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৩-০৮-০৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৮-১০ 
  4. "আবু সাইয়িদ, আসন নং: ৬৮, পাবনা-১"দৈনিক প্রথম আলো। ২৫ আগস্ট ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ আগস্ট ২০২০