আবু তালেব মিয়া

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ

আবু তালেব মিয়া (১৯৩৬ –১৬ মে ২০০৭) বাংলাদেশের গাইবান্ধা জেলার রাজনীতিবিদ ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক যিনি তৎকালীন রংপুর-১৮ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন।[১]

আবু তালেব মিয়া
রংপুর-১৮ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
৭ মার্চ ১৯৭৩ – ৬ নভেম্বর ১৯৭৬
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মমোহাম্মদ আবু তালেব মিয়া
১৯৩৬
গাইবান্ধা, বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমান বাংলাদেশ)
মৃত্যু১৬ মে ২০০৭
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

প্রাথমিক জীবন

সম্পাদনা

আবু তালেব মিয়া ১৯৩৬ সালে গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাপুরের ভাতগ্রামের টিয়াগাছা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মৃত আলহাজ্ব তইজ উদ্দিন মিয়া।[২]

রাজনৈতিক জীবন

সম্পাদনা

আবু তালেব মিয়া মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ছিলেন। তিনি ৬ দফা আন্দোলন, ভাষা আন্দোলনবাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণসহ তৎকালীন সকল রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে সক্রিয় ভূমিকা রাখেন। গাইবান্ধা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সহসভাপতি ও সাদুল্লাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৭০ সালের পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে জাতীয় পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হয়ে ছিলেন। ১৯৭২ সালে তিনি গাইবান্ধা রেডক্রিসেন্টের চেয়ারম্যান ছিলেন।[২] ১৯৭৩ সালের প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে তৎকালীন রংপুর-১৮ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি।[১]

১৯৯১ সালের পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাকশালের প্রার্থী হিসেবে গাইবান্ধা-৩ আসন থেকে তিনি পরাজিত হয়েছিলেন।[৩]

মৃত্যু

সম্পাদনা

আবু তালেব মিয়া ১৬ মে ২০০৭ সালে মৃত্যুবরণ করেন।[২]

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "১ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (পিডিএফ)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. "সাদুল্লাপুর উপজেলা, প্রখ্যাত ব্যক্তিত্ব"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। ২২ আগস্ট ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ আগস্ট ২০২০ 
  3. "আবু তালেব মিয়া, আসন নং: ৩১, গাইবান্ধা-৩, দল: বাকশাল (কাস্তে)"দৈনিক প্রথম আলো। ২৭ ফেব্রুয়ারি ১৯৯১। ২২ আগস্ট ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ আগস্ট ২০২০