আবদুল কাদির বাদায়ুনি

ভারতীয় ইতিহাসবেত্তা

আবদুল কাদির বদায়ুনি (১৫৪০-১৬১৫)[৩] একজন ইতিহাসবিদ এবং অনুবাদক ছিলেন। তিনি মুঘল সাম্রাজ্যে বসবাস করতেন।[১]

আব্দুল কাদির বাদায়ুনি
عبدالقادر بن ملوک شاه بدائونی
উচ্চারণʽAbd al-Qādir al-Badāyūni
জন্ম
আব্দুল কাদির

১৫৪০
মৃত্যু১৬১৫
আগ্রা, মুঘল ভারত
জাতীয়তাভারতীয়
যুগমধ্যযুগীয় ভারত
নিয়োগকারীমুঘল সাম্রাজ্য
ব্যক্তিগত তথ্য
আদি নিবাসআগ্রা
যে জন্য পরিচিতঐতিহাসিক, মুসলিম পণ্ডিত, ভাষাবিদরাজসভাসদ
ঊর্ধ্বতন পদ
যার দ্বারা প্রভাবিত
সাহিত্যকর্মতারিখে বাদায়ুনি (মুন্তাখাবুত তাওয়ারিখ নামেও পরিচিত)

তিনি হিন্দু রচনা, রামায়ণমহাভারত (রাজনামা) অনুবাদ করেছেন।[১]

তিনি ছিলেন মুলুক শাহের পুত্র।[৪] সম্ভল ও আগ্রায় অধ্যয়নরত ছেলে হিসেবে তিনি বাসাভারে থাকতেন।[১] নয় বছরের জন্য রাজপুত্র হোসেন খানের চাকরিতে প্রবেশের জন্য পাটিয়ালায় যাওয়ার আগে ১৫৬২ সালে তিনি বাদাউনে চলে যান, যেই এলাকার নামানুসারে তার নামকরণ করা হয়েছিল।[১] তার পরবর্তী বছরগুলোর অধ্যয়নের মূল ছিলেন মুসলিম সুফিবাদিরা। মুঘল সম্রাট আকবর ১৫৭৪ সালে তাকে রাজদরবারে ধর্মীয় অফিসে নিযুক্ত করেন যেখানে তিনি তার কর্মজীবনের বেশিরভাগ সময় অতিবাহিত করেন।[১]

প্রধান কর্মসমূহ

সম্পাদনা

বাদায়ুনিমুনতাখাবুত তাওয়ারিখ (ইতিবৃত্তের নির্বাচন) বা তারিখে বাদায়ুনি (বাদায়ুনির ইতিহাস) লিখেছেন যা ১৫৯৫ সালে (১০০৪ হিজরি) সম্পন্ন হয়েছিল। তিন খণ্ডের এই রচনাটি ভারতের মুসলমানদের একটি সাধারণ ইতিহাস। প্রথম খণ্ডে বাবরহুমায়ুনের বিবরণ রয়েছে। দ্বিতীয় খণ্ডে আকবরের ১৫৯৫ সাল পর্যন্ত রাজত্বকালের কথা বলা হয়েছে। এই খণ্ডে আকবরের প্রশাসনিক ব্যবস্থা, বিশেষতঃ তার ধর্মীয় দৃষ্টিভঙ্গি এবং আচরণের উপর একটি অস্বাভাবিকভাবে খোলামেলা এবং সমালোচনামূলক বিবরণ। আকবরের মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এই খণ্ডটি গোপন রাখা হয়েছিল এবং জাহাঙ্গীরের রাজত্বের পর প্রকাশিত হয়েছিল। এই বইটি ধর্ম ও তার ধর্মীয় নীতি সম্পর্কে আকবরের দৃষ্টিভঙ্গির বিকাশের বিষয়ে একটি সমসাময়িক দৃষ্টিভঙ্গি দেয়। তৃতীয় খণ্ডে মুসলিম ধর্মীয় ব্যক্তিত্ব, পণ্ডিত, চিকিৎসক ও কবিদের জীবন ও কর্মের বর্ণনা রয়েছে।[৪]

এই কাজের পাঠ্যের প্রথম মুদ্রিত সংস্করণটি ১৮৬৫ সালে কলেজ প্রেস, কলকাতা থেকে প্রকাশিত হয়েছিল এবং পরে এই কাজটি জিএসএ র‌্যাঙ্কিং দ্বারা প্রথম খণ্ড, ডব্লিউ এইচ লোউ দ্বারা দ্বিতীয় খণ্ড এবং টিডব্লিউ হেইগ দ্বারা তৃতীয় খণ্ড ইংরেজিতে অনুবাদ করা হয়েছিল। (এশিয়াটিক সোসাইটি, কলকাতা তাদের বিবলিওথেকা ইন্ডিয়াকা সিরিজের অংশ হিসাবে ১৮৮৪ এবং ১৯২৫ সালের মধ্যে প্রকাশ করেছিল)।

জনপ্রিয় সংস্কৃতিতে

সম্পাদনা

ইরফান খান দূরদর্শনের ঐতিহাসিক নাটক ভারত এক খোঁজ (১৯৮৮-১৯৮৯) এ বদায়ুনি চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।[৫]

তাজ: ডিভাইডেড বাই ব্লাড ছবিতে অয়ম মেহতা তাকে চিত্রিত করেছিলেন।

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "Abd al-Qadir Bada'uni"Encyclopædia Britannica। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৬ 
  2. ʽAbd al-Qadir Badayuni। "II. An account of the learned men, most of whom the author has met, or from those whom he has received instruction."Haig, WolseleyMuntakhab-ut-Tawārīkh3। পৃষ্ঠা 188। 
  3. "ʿAbd al-Qādir Badāʾūnī | Indo-Persian historian" 
  4. The Mughul EmpireThe History and Culture of the Indian People (4th সংস্করণ)। Bharatiya Vidya Bhavan। ২০০৭। পৃষ্ঠা 6–7। 
  5. "Ashutosh Gowariker recalls seeing an 'unknown actor' Irrfan Khan during Discovery of India's shoot : 'Have been fan ever since'"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৫-০৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-০১ 

আরও পড়ুন

সম্পাদনা

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা