আনোয়ার শাহ কাশ্মীরি

ইসলামি পন্ডিত
(আনোয়ার শাহ কাশ্মিরি থেকে পুনর্নির্দেশিত)

সৈয়দ মুহাম্মদ আনোয়ার শাহ ইবনে মুয়াজ্জাম শাহ কাশ্মীরি (উর্দু: سيد محمد انور شاه بن معظم شاه کشمیری‎‎; আরবি: سيد محمد أنور شاه بن معظم شاه الكشميري الهندي‎‎, Sayyid Muḥammad Anwar Shāh ibn Mu‘aẓẓam Shāh al-Kashmīrī al-Hindī; ১৬ নভেম্বর ১৮৭৫ – ২৮ মে ১৯৩৩) ছিলেন ভারতের একজন মুসলিম পণ্ডিত। তার কর্মজীবনে তিনি দারুল উলুম দেওবন্দসহ বেশ কিছু খ্যাতনামা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষাদান করেছেন। দারুল উলুম দেওবন্দে তার সম্মানে একটি ফটকের নামকরণ করা হয়েছে।[১] তিনি ইসলাম সম্পর্কে আরবিফারসিতে বেশ কিছু বই লিখেছেন। তিনি ছিলেন মাদ্রাসা আমিনিয়া ইসলামিয়া আরাবিয়ার প্রথম অধ্যক্ষ। দারুল উলুম দেওবন্দে তিনি প্রায় ১২ বছর অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[২]


মুহাম্মদ আনোয়ার শাহ

কাশ্মীরি
আনোয়ার শাহ কাশ্মীরি.jpg
দারুল উলুম দেওবন্দের ৪র্থ অধ্যক্ষ
অফিসে
১৯১৫ – ১৯২৭
পূর্বসূরীমাহমুদ হাসান দেওবন্দি
উত্তরসূরীহুসাইন আহমদ মাদানি
ব্যক্তিগত
জন্ম(১৮৭৫-১১-১৬)১৬ নভেম্বর ১৮৭৫
মৃত্যু২৮ মে ১৯৩৩(1933-05-28) (বয়স ৫৭)
দেওবন্দ, যুক্ত প্রদেশ, ব্রিটিশ ভারত
ধর্মইসলাম
সন্তানআজহার শাহ কায়সার
আনজার শাহ কাশ্মীরি
আখ্যাসুন্নি
ব্যবহারশাস্ত্রহানাফি
ধর্মীয় মতবিশ্বাসমাতুরিদি
আন্দোলনব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন
প্রধান আগ্রহহাদিস
যেখানের শিক্ষার্থীদারুল উলুম দেওবন্দ
কাজশিক্ষক, মুহাদ্দিস
মুসলিম নেতা

তিনি তার স্মৃতিশক্তির জন্য পরিচিত। তার পুত্রের ভাষ্যমতে তিনি কিছু সংক্ষিপ্তভাবে পড়লে তার স্মৃতিতে ৩০ বছরের জন্য জমা হয়ে যেত, আর যদি তিনি বিস্তারিত পড়তেন তবে তা সারাজীবন মনে থাকত।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

আনোয়ার শাহ কাশ্মীরি কাশ্মীরে ২৭ শাওয়াল ১২৯২ হিজরিতে (১৮৭৫ খ্রিষ্টাব্দ) একটি সৈয়দ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। চার বছর বয়সে তিনি তার পিতা মোয়াজ্জেম আলী শাহের নির্দেশে কুরআন অধ্যয়ন শুরু করেন।[২] ১৮৮৯ সালে তিনি দেওবন্দে ভর্তি হন এবং তিন বছর দারুল উলুম দেওবন্দে অধ্যয়ন করেন। এখানে তিনি মাহমুদ হাসান দেওবন্দি ও অন্যান্যদের অধীনে পড়াশোনা করেন। এরপর ১৮৯৬ সালে (১৩১৪ হিজরি) তিনি রশিদ আহমদ গাঙ্গোহীর নিকট অধ্যয়ন করেন এবং হাদিসে (যা তিনি দুই বছর যাবত পড়াশোনা করেছিলেন) এবং আধ্যাত্মিক বিষয়ে একটি শিক্ষা সনদ অর্জন করেছিলেন।[২]

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

আনোয়ার শাহ ১৯০৮ সালে গঙ্গোহের এক নারীর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তিনি দুই মেয়ে ও তিন ছেলের জনক ছিলেন।

উল্লেখযোগ্য ছাত্রসম্পাদনা

আনোয়ার শাহের ছাত্রদের মধ্যে মানাজির আহসান গিলানি, মুহাম্মদ তৈয়ব কাসেমি, হিফজুর রহমান সিওহারভি, সাইদ আহমদ আকবরাবাদী, জয়নুল আবেদীন সাজ্জাদ মিরাঠী, মুহাম্মদ মিয়া দেওবন্দি, মানজুর নোমানী, মুহাম্মদ শফি উসমানি প্রমুখ উল্লেখযোগ্য।[৩][৪]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; Noor নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  2. রিজভী, সৈয়দ মেহবুবতারিখে দারুল উলুম দেওবন্দ [দারুল উলুম দেওবন্দের ইতিহাস]। ২য় খণ্ড। মুরতাজ হুসাইন এফ কুরাইশী কর্তৃক অনূদিত (১৯৮১ সংস্করণ)। দারুল উলুম দেওবন্দ: ইদারা এহতেমাম। পৃষ্ঠা ৪৯–৫১, ৫২–৫৫। 
  3. মুহাম্মদ তাকি উসমানী। "ইমাম আল-আস্‌র হজরত আল্লামা সাইয়্যেদ আনোয়ার শাহ সাহেব কাশ্মীরি"। আকাবিরে দেওবন্দ কেয়া থায় (উর্দু ভাষায়) (মে ১৯৯৫ সংস্করণ)। জমজম বুক ডিপোট, দেওবন্দ। পৃষ্ঠা ৪১–৫৪। 
  4. নাসিম আখতার শাহ কায়সার। Do Gohar Aabdaar (সেপ্টেম্বর ২০১৬ সংস্করণ)। জামিয়া ইমাম মুহাম্মদ আনোয়ার শাহ। পৃষ্ঠা ৩২। 

গ্রন্থপঞ্জিসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা