আদ্দিস আবাবা

ইথিওপিয়ার রাজধানী

আদ্দিস আবাবা (আমহারিক: አዲስ አበባ?, Addis Abäba টেমপ্লেট:IPA-am ইথিওপিয়ান ম্যাপিং অথরিটি এই বানানটিই ব্যবহার করে) (ইথিওপীয় ভাষায় (আমহারিক ভাষা): Adis Abäba বা "নতুন ফুল", অরমো: Finfinne, আ-ধ্ব-ব: [adːiːs aβəβa]) হচ্ছে ইথিওপিয়ার রাজধানী ও প্রধান শহর। এটির জনসংখ্যার দিক দিয়ে ইথিওপিয়ার সবচেয়ে বড়ো শহর, ২০০৮ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী যার জনসংখ্যা ৩৩,৮৪,৫৬৯।[১]

আদ্দিস আবাবা
  • Finfinne (ভাষা?)
Chartered city
EeBMwOTU0AEJ73k.jpg
Addis Ababa LRT by Ben Welle 02.jpg
Parco dell'università di addis abeba, 09.jpg
Ethiopia 2012 African Union, new HQ (6972190151).jpg
Lion of Judah, Addis Ababa, Ethiopia.JPG
Addis abeba, chiesa della trinità, esterno 05.jpg
আদ্দিস আবাবার পতাকা
পতাকা
আদ্দিস আবাবার অফিসিয়াল সীলমোহর
সীলমোহর
দেশ ইথিওপিয়া
চার্টার্ড শহরআদ্দিস আবাবা
চার্টার্ড১৮৮৬
সরকার
 • মেয়রকুমা দেমাস্কা
আয়তন
 • Chartered city৫৩০.১৪ বর্গকিমি (২০৪.৬৯ বর্গমাইল)
 • স্থলভাগ৫৩০.১৪ বর্গকিমি (২০৪.৬৯ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০০৮)
 • Chartered city৩৩,৮৪,৫৬৯
 • জনঘনত্ব৫,১৬৫.১/বর্গকিমি (১৩,৩৭৮/বর্গমাইল)
 • পৌর এলাকা৩৩,৮৪,৫৬৯
 • মহানগর৪৫,৬৭,৮৫৭
 [১]
সময় অঞ্চলপূআস (ইউটিসি+৩)

ইথিওপিয়ার গুরুত্বপূর্ণ শহর হিসেবে এটি একই সাথে শহর এবং প্রদেশ। আফ্রিকার দেশসমূহের সংস্থা আফ্রিকান ইউনিয়ন এ শহরকে কেন্দ্র করেই গঠিত। এজন্য আদ্দিস আবাবাকে প্রায় সময়ই আফ্রিকার রাজধানী হিসেবে অভিহিত করা হয়। ঐতিহাসিক, রাজনৈতিক, কূটনৈতিক, সকল ক্ষেত্রেই এ শহরটি যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ও প্রভাবশালী। ইথিওপিয়ার বিভিন্ন স্থানের মানুষ এ শহরে বাস করে। ইথিওপিয়ায় প্রায় ৮০টিরও বেশি জাতির মানুষ আছেন, যারা ৮০'রও বেশি ভাষায় কথা বলেন, যার ফলে ইথিওপিয়ায় বিভিন্ন ধর্ম-বর্ণের এক বিচিত্র সম্প্রদায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। বিখ্যাত আদ্দিস আবাবা বিশ্ববিদ্যালয় এখানেই অবস্থিত।

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৭,৫৪৬ ফুট (২,৩০০ মিটার) উচ্চতায় আদ্দিস আবাবা অবস্থিত। এর স্থানাঙ্ক: ৯°১′৪৮″ উত্তর ৩৮°৪৪′২৪″ পূর্ব / ৯.০৩০০০° উত্তর ৩৮.৭৪০০০° পূর্ব / 9.03000; 38.74000[২] এনটোলো পর্বতের পাদদেশে এই শহরটি অবস্থিত।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Central Statistical Agency of Ethiopia। "Census 2007, preliminary (pdf-file)" (PDF)। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-১২-০৭ 
  2. "NGA: Country Files"। ৪ মে ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ নভেম্বর ২০০৯ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

সরকারিসম্পাদনা