অ্যানা কেন্ড্রিক

অ্যানা কেন্ড্রিক (ইংরেজি: Anna Kendrick) (জন্ম: ৯ আগস্ট ১৯৮৫)[১] একজন মার্কিন গায়িকা এবং অভিনেত্রী। ২০০৯ সালে অ্যানা কেন্ড্রিক "আপ ইন দি এয়ার" চলচ্চিত্রে অভিনয় করার পর আন্তর্জাতিক খ্যাতি অর্জন করেন এবং এই চলচ্চিত্রে পার্শ্ব অভিনেত্রী হিসাবে অভিনয়ের জন্য কেন্ড্রিক একাডেমি পুরস্কার, গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার, বাফটা পুরস্কার, এবং স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিলেন।

অ্যানা কেন্ড্রিক
Anna Kendrick March 22, 2014 (cropped).jpg
২০১৪ সালে গ্যেফ্যেন ফাণ্ডরেইসার অনুষ্ঠানে
জন্ম (1985-08-09) ৯ আগস্ট ১৯৮৫ (বয়স ৩৪)
পোর্টল্যান্ড, মেইন, যুক্তরাষ্ট্র.
পেশাঅভিনেতা, গায়িকা
কর্মজীবন১৯৯৮–বর্তমান

প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

কেন্ড্রিক ১৯৮৫ সালের ৯ আগস্ট মেইন রাজ্যের পোর্টল্যান্ড শহরে জন্মগ্রহণ করেছেন। তার মা, জেনিস (জন্মনাম কোক), একজন হিসাবরক্ষক এবং তার বাবা, কে. কেন্ড্রিক একজন ইতিহাসের শিক্ষক।[২] তার নানা নানীর নাম রনালদ এবং রুথ (নী স্মল) কোক (১৯১৮-২০১১)।[৩][৪] তার বড় ভাই, মাইকেল কোক কেন্ড্রিক, একজন অভিনেতা। লুকিং ফর অ্যান ইকো চলচ্চিত্রে তার ভাইকে দেখা গিয়েছে। কেন্ড্রিক পোর্টল্যান্ড শহরে ডিরিং হাই স্কুলে পড়াশুনা করেছেন।[৫]

কর্মজীবনসম্পাদনা

১৯৯৮-২০০৭: মঞ্চনাটক ও চলচ্চিত্রে অভিষেকসম্পাদনা

কেন্দ্রিক শিশুশিল্পী হিসাবে তার কর্মজীবন শুরু করেন। তিনি নিউ ইয়র্ক সিটি থিয়েটারের একটি মঞ্চনাটকের জন্য অডিশন দেন। ১২ বছর বয়সে তিনি ১৯৯৮ সালের ব্রডওয়ে থিয়েটারের সঙ্গীতধর্মী হাই সোসাইটি" মঞ্চনাটকে পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেন। তিনি দিনাহ লর্ড চরিত্রে তার অভিনয়ের জন্য থিয়েটার ওয়ার্ল্ড পুরস্কার লাভ করেন, পাশাপাশি সঙ্গীতধর্মী নাটকের অভিনেত্রী হিসেবে ড্রামা ডেস্ক পুরস্কার এবং টনি পুরস্কার এর মনোনয়ন লাভ করেন।[৬] ২০০৩ সালে তিনি স্টিভেন সান্ডহাইম নির্দেশিত নিউইয়র্ক সিটি অপেরার সঙ্গীতধর্মী আ লিটল নাইট মিউজিক মঞ্চনাটকে পার্শ্ব ভূমিকায় অভিনয় করেন।

কেন্ড্রিক সঙ্গীতধর্মী-হাস্যরসাত্মক ক্যাম্প দিয়ে চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন।[৭] ফ্রিটজি ওয়াগনার চরিত্রে তার অভিনয় সেরা নবাগত অভিনেত্রীর জন্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পিরিট পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করে। পরে তিনি ২০০৭ সালে রকেট সায়েন্স ছবিতে একজন উচ্চাভিলাষী স্কুলে পড়ুয়া বিতর্ককারী চরিত্রে অভিনয় করেন। যার জন্য তিনি সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রীর জন্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পিরিট পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

২০০৮-২০১১: টোয়ালাইট ও আপ ইন দি এয়ারসম্পাদনা

কেন্ড্রিক ২০০৮ সালে স্টেফিনি মেয়েরের একই নামের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত ফ্যান্টাসি রোম্যান্স টোয়ালাইটের জন্য খ্যাতি অর্জন করেন। ছবিটি বক্স অফিসে ব্লকবাস্টার হয়ে ওঠে। কেন্ড্রিক ছবিটির কেন্দ্রীয় চরিত্র বেলা সোয়ানের কাছের বন্ধু জেসিকা স্ট্যানলি চরিত্রে অভিনয় করেন। ২০০৯ সালে তিনি কমেডি দ্য মার্ক পেজ এক্সপেরিয়েন্স ছবিতে অভিনয় করেন।অপরাধ থ্রিলারধর্মী এই ছবিতে তিনি প্রথম কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন এবং দ্য টোয়ালাইট সাগা: নিউ মুন ছবিতে পুনরায় জেসিকা স্ট্যানলি চরিত্রে অভিনয় করেন।[৮]

এরপর তিনি জেসন রেইটম্যানের পরিচালনায় জর্জ ক্লুনির সাথে আপ ইন দি এয়ার (২০০৯) ছবিতে অভিনয় করেন। সমালোচকেরা একজন উচ্চাভিলাষী কলেজ স্নাতক চরিত্রে তার অভিনয়ের প্রশংসা করে। তাদের ভাষ্যমতে তার চরিত্রটি ছিল "মজার এবং স্পর্শকাতর"[৯] এবং বলেন "তিনি যে সকল দৃশ্যে ছিলেন তা ঠিকভাবেই করেছেন।"[১০] এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য তিনি একাডেমি পুরস্কার, গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার, স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার এবং বাফটা পুরস্কারসহ বিভিন্ন পুরস্কার অনুষ্ঠানে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রীর পুরস্কারের জন্য মনোনীত হন।

চলচ্চিত্রসম্পাদনা

বছর চলচিত্রের নাম চরিত্রের নাম টীকা
২০০৩ ক্যাম্প ফ্রিটজি ওয়াগনার মনোনীত সেরা নবাগত অভিনেত্রীর জন্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পিরিট পুরস্কার
২০০৭ রকেট সায়েন্স গ্রিনি র‍্যেরসন মনোনীত সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রীর জন্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পিরিট পুরস্কার
২০০৮ টোয়াইলাইট জেসিকা স্ট্যানলি
২০০৯ এলস্বহয়ের সারাহ
২০০৯ দ্যা মার্ক পিস এক্সপেরিয়েন্স মেগ ব্রিক্মান
২০০৯ দ্য টোয়াইলাইট সাগা: নিউ মুন জেসিকা স্ট্যানলি
২০০৯ আপ ইন দি এয়ার" ন্যাটলি কিনার মনোনীত সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রীর জন্য একাডেমি পুরস্কার, গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার, স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার এবং বাফটা পুরস্কার
২০১০ টোয়াইলাইট সাগা: এক্লিপ্স জেসিকা স্ট্যানলি
২০১০ স্কট পিলগ্রিম ভার্সাস দ্য ওয়ার্ল্ড স্টেসি পিল্গ্রিম
২০১১ ৫০/৫০ ক্যাথেরিন ম্যাককে
২০১১ দ্য টোয়াইলাইট সাগা: ব্রেকিং ডন জেসিকা স্ট্যানলি
২০১২ হোয়াট টু এক্সপেক্ট হোয়েন ইউ আর এক্সপেক্টিং রসি ব্রেনান
২০১২ পারানরমান কোর্টনি ব্যাবক (কণ্ঠা)
২০১২ এন্ড অফ ওয়াচ জ্যানেট
২০১২ পীচ পারফেক্ট বেকা মিশেল
২০১২ দ্য টোয়াইলাইট সাগা: ব্রেকিং ডন - পার্ট ২ জেসিকা স্ট্যানলি Credits only
২০১২ দ্যা কম্পানি ইউ কিপ ডাইয়ানা
২০১৩ দ্রিঙ্কিং বাডিস জিল
২০১৩ র‍্যাপচার-পালুজা লিন্দসি লিইস
২০১৪ হ্যাপি ক্রিস্টমাস জেনি
২০১৪ লাইফ আফটার বেথ এরিকা ওয়েক্সলার
২০১৪ দ্যা ভয়েস লিসা
২০১৪ কেক নিনা
২০১৪ দ্য ল্যাস্ট ফাইভ ইয়ার্স ক্যাথি হিয়াট
২০১৪ ইন টু দ্য উডস সিড্রেলা
২০১৫ গেট আ জব জিলিয়ান স্টিওারট
২০১৫ পিচ পারফেক্ট ২ বেকা মিশেল
২০১৫ দ্যা হলারস রেবেকা
২০১৫ মিস্টার রাইট মারথা

টেলিভিশানসম্পাদনা

বছর নাটকের নাম চরিত্রের নাম টীকা
২০০৩ দ্যা মেয়র স্যাডি উইন্তারহ্লটার চলচিত্র
২০০৭ ভিভা লাফ্লিন হলি পর্বঃ "ওহাট এ ওহেল ওয়ান্তস"
২০০৯ ফিয়ার ইটসেলফ (টেলিভিশন সিরিজ) সেল্বি পর্বঃ "দ্যা স্পিরিট বক্স"
২০১৩ কমেডি ব্যাং! ব্যাং! নিজ চরিত্র পর্বঃ "অ্যানা কেন্ড্রিক উয়ারস এ প্যাতারন্ড ব্লাউস অ্যান্ড বারগেন্দি প্যান্টস"
২০১৩ সো ইউ থিঙ্ক ইউ ক্যান ড্যান্স অতিথি বিচারক পর্বঃ "টপ ১৪ পারফর্ম"
২০১৪ স্ট্যারডে নাইট লাইভ। নিজ চরিত্র পর্ব : "অ্যানা কেন্ড্রিক/পাহ্রেল উইলিয়ামস"[১১]

পুরস্কারসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Rahman, Ray (আগস্ট ৯, ২০১৩)। "Monitor"এন্টারটেইনমেন্ট উইকলি (1271)। পৃষ্ঠা 22। 
  2. "Classic-era Hollywood has always been Anna Kendrick's inspiration"The Sydney Morning Herald। অক্টোবর ২১, ২০১২। সংগ্রহের তারিখ জুন ১০, ২০১৩ 
  3. "Ruth (Small) Cooke Obituary"প্রেস হেরাল্ড। ৩১ অক্টোবর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৭ 
  4. Hughes, Jason (সেপ্টেম্বর ২০, ২০১১)। "Anna Kendrick Talks About an Awkward Compliment, on 'Chelsea Lately' (VIDEO)"। সংগ্রহের তারিখ জুন ১০, ২০১৩ 
  5. Pacheco, Patrick। "Portland Native Anna Kendrick Charms Hollywood"। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৫, ২০১৩ 
  6. Erbland, Kate (১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৫)। "8 Great Anna Kendrick Musical Performances (That Aren't "Cups")"ভ্যানিটি ফেয়ার। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৭ 
  7. "Anna Kendrick Writes About Her Film Debut 'Camp' In Her Autobiography"সামার ক্যাম্প কালচার। ২৯ জানুয়ারি ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৭ 
  8. "'Twilight' star Anna Kendrick talks '50/50,' and Rob and Kristen"এন্টারটেইনমেন্ট উইকলি। ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৭ 
  9. Lumenick, Lou (৪ ডিসেম্বর ২০০৯)। "Top flight!"নিউ ইয়র্ক পোস্ট। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৭ 
  10. Dargis, Manhola (৩ ডিসেম্বর ২০০৯)। "Neither Here Nor There"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৭ 
  11. "Pharrell, Seth Rogen, Anna Kendrick Coming to SNL – Time"Time 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা