প্রধান মেনু খুলুন

অ্যাঞ্জেলিকা হিউস্টন

মার্কিন অভিনেত্রী

অ্যাঞ্জেলিকা হিউস্টন (ইংরেজি: Anjelica Huston; জন্ম: ৮ জুলাই ১৯৫১) হলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী। হিউস্টন তার পরিবারের তৃতীয় ব্যক্তি, যিনি একাডেমি পুরস্কার জয় করেছেন। এর আগে তার বাবা পরিচালক জন হিউস্টন, ও দাদা অভিনেতা ওয়াল্টার হিউস্টনও অস্কার জয় করেছিলেন। ১৯৮৫ সালে প্রিৎজিস অনার চলচ্চিত্রে অভিনয় করার জন্য হিউস্টন একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন। পরবর্তীতে ১৯৮৯ ও ১৯৯০ সালে যথাক্রমে এনিমিস, আ লাভ স্টোরি, ও দ্য গ্রিফটারস চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেছিলেন। এছাড়া তিনি ১৯৯১ ও ১৯৯৩ সালে দুই বার গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের জন্যও মনোনীত হয়েছিলেন।

অ্যাঞ্জেলিকা হিউস্টন
Anjelica Huston1.JPG
২০০৫ সালে অ্যাঞ্জেলিকা হিউস্টন
স্থানীয় নাম
Anjelica Huston
জন্ম (1951-07-08) ৮ জুলাই ১৯৫১ (বয়স ৬৮)
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল১৯৬৭–বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীরবার্ট গ্রাহাম জুনিয়র (১৯৯২–২০০৮) (আমৃত্যু)
সঙ্গীজ্যাক নিকোলসন (১৯৭৩-১৯৯০)
আত্মীয়ওয়াল্টার হিউস্টন (দাদা)
টনি হিউস্টন (ভাই)
ড্যানি হিউস্টন (সৎ ভাই)
আলেগ্রা হিউস্টন (সৎ বোন)
জ্যাক হিউস্টন (সৎ ভাই)

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

১৯৬০ সালে একজন কিশোরী মডেল হিসেবে কাজ করার সময় তিনি আলোকচিত্রী বব রিচার্ডসনের সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন, যিনি ছিলেন তার চেয়ে বয়সে ২৩ বছর বড়।[১] এছাড়া অভিনেতা রায়ান ও'নিল, ও জ্যাক নিকোলসনের সাথেও তার সম্পর্ক ছিলো। হিউস্টন ১৯৭৭ সালে পরিচালক রোমান পোলানস্কির বিচারের সময় একজন প্রত্যক্ষদর্শী বা সাক্ষী হিসেবে ছিলেন, কারণ যে দোষে পোলানস্কি বিচারের মুখোমুখি হয়েছিলেন, সেই ১৩ বছর বয়সী মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়েছিলো নিকোলসনের বাসাতেই।[২] তার ভাষ্য ছিলো যে, তিনি হঠাৎ বাসাতে ঢুকতে পেয়ে ব্যাপারটি দেখতে পান, এবং পরবর্তীতে তিনি তা ব্যক্তিগতভাবে শুধু নিকোলসনের সাথেই শেয়ার করেন যে, অপরাধের শিকার মেয়েটিকে তিনি পোলানস্কির সাথে নিকোলসনের শোবার ঘরে দেখেছেন।[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা