অনন্য মামুন

বাংলাদেশী চলচ্চিত্র পরিচালক

অনন্য মামুন, বাংলা চলচ্চিত্রের একজন পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার। তাঁর উল্লেখযোগ্য কাজগুলো হলঃ মোস্ট ওয়েলকাম, আমি শুধু চেয়েছি তোমায়, অস্তিত্ব, তুই শুধু আমার, আমি তোমার হতে চাই, ভালোবাসার গল্প, আবার বসন্ত, বন্ধন, মেকআপ

অনন্য মামুন
অনন্য মামুন.jpg
জন্ম
পেশাচলচ্চিত্র পরিচালক, চিত্রনাট্যকার, প্রযোজক
কর্মজীবন২০০০–বর্তমান

কর্মজীবনসম্পাদনা

চিত্রনাট্য লেখক হিসাবে অনন্য মামুন ২০০০ সালে তাঁর কর্মজীবন শুরু করেন। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র জগতে অনন্য মামুনের লেখা অনেক ব্লকবাস্টার চলচ্চিত্র রয়েছে। তাছাড়াও, তিনি টালিউড চলচ্চিত্রের জন্য প্রচুর পান্ডুলিপি লিখেছেন। ২০১২ সালে তিনি তাঁর প্রথম চলচ্চিত্র মোস্ট ওয়েলকাম পরিচালনা করেন। তারপরে ২০১৪ সালে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে প্রথম যৌথ-প্রযোজনার চলচ্চিত্র আমি শুধু চিয়েছি তোমায় পরিচালনা করেন।

২০১৫ সালে ব্ল্যাকমেল (২০১৫-এর চলচ্চিত্র) এবং ভালবাসার গল্প দুটি ছবি মুক্তি পায়।

২০১৬ সালে আরিফিন শুভ এবং নুসরাত ইমরোজ তিশা অভিনীত অস্তিত্ব মুক্তি পায়।[১] ২০১৬ সালে বাপ্পি চৌধুরী এবং বিদ্যা সিনহা সাহা মিম অভিনীত অমি তোমার হতে চায় চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায়।[২]

চলচ্চিত্রের তালিকাসম্পাদনা

বছর চলচ্চিত্র ভূমিকা অভিনেতা নোট
২০১০ ওয়ান্টেড রচয়িতা জিৎ, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় পুনর্নির্মাণঃ আথাদু
২০১২ মোস্ট ওয়েলকাম রচনা ও পরিচালনা অনন্ত জলিল, আফিয়া নুসরাত বর্ষা, রাজ্জাক পুনর্নির্মাণঃ কন্দস্বামী
২০১৪ আমি শুধু চেয়েছি তোমায় রচনা ও পরিচালনা অঙ্কুশ, শুভশ্রী গাঙ্গুলী পুনর্নির্মাণঃ আরিয়া 2
২০১৫ ব্ল্যাকমেইল রচনা, প্রযোজনা ও পরিচালনা আনিসুর রহমান মিলন, ইয়ামিন হক ববি, মৌসুমী হামিদ
ভালবাসার গল্প পরিচালনা আনিসুর রহমান মিলন, আফরিন, কায়েস রাজু
২০১৬ অস্তিত্ব সংলাপ ও পরিচালনা আরিফিন শুভ, নুসরাত ইমরোজ তিশা
আমি তোমার হতে চাই পরিচালনা বাপ্পি চৌধুরী, বিদ্যা সিনহা সাহা মীম
২০১৮ তুই শুধু আমার পরিচালনা সোহম চক্রবর্তী, মাহিয়া মাহী, ওম বাংলাদেশ–ভারত যৌথ প্রযোজনা
২০২০ নবাব এলএলবি পরিচালনা শাকিব খান, মাহিয়া মাহী, অর্চিতা স্পর্শিয়া একটি আই থিয়েটার চলচ্চিত্র
২০২১ সাইকো  পরিচালনা জিয়াউল রোশান, পূজা চেরি রায়
মেকআপ  পরিচালনা জিয়াউল রোশান, নিপা আহমেদ রিয়েলি, তারিক আনাম খান
কসাই  পরিচালনা নিরব হোসেন, প্রিয় মণি, রাশেদ মামুন অপু, কাজী নওশাবা আহমেদ, শাহীন মৃধা, লুৎফর রহমান খান সীমান্ত, রিও একটি আই থিয়েটার চলচ্চিত্র

সমালোচনাসম্পাদনা

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের অজুহাতে ৫৭ জনকে পাচারের জন্য মালয়েশিয়ায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।[৩][৪] পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।[৫]

২০২০ সালের ১৬ ডিসেম্বর আইথিয়েটারে তার পরিচালিত নবাব এলএলবি চলচ্চিত্র অর্ধাংশ মুক্তি দেয়ায় তিনি দর্শকদের কাছে নেতিবাচক অভ্যর্থ্যনা পেয়েছিলেন। ২৪ ডিসেম্বর ঐ চলচ্চিত্রে পুলিশকে বিকৃতভাবে উপস্থাপনের অভিযোগে গ্রেপ্তার ও কারাগারে পাঠানো হয়েছিল।[৬][৭]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Arifin Shuvo shoots Astitwo"The Daily Star। ১৪ নভেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৬ 
  2. "Ami Tomar Hote Chai (2016) - IMDb" 
  3. "Malaysian police runs sting operation to arrest Bangladeshi director"Dhaka Tribune। ডিসেম্বর ২৬, ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  4. Rodzi, Nadirah (ডিসেম্বর ২৬, ২০১৭)। "Malaysian police detain Bangladeshi film director on suspicion of human trafficking"The Straits Times। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  5. "Anonno Mamun released from Malaysian detention, will return home on Saturday"Dhaka Tribune। জানুয়ারি ১২, ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  6. "কারাগারে 'নবাব এলএল.বি'র নির্মাতা অনন্য মামুন"চ্যানেল আই অনলাইন। ২০২০-১২-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-২৫ 
  7. "পর্নোগ্রাফি আইনে দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার পরিচালক ও অভিনেতা"প্রথম আলো। ২০২০-১২-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-২৫ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা