অঞ্জু ববি জর্জ

ভারতীয় অ্যাথলিট

অঞ্জু ববি জর্জ (জন্ম: ১৯ এপ্রিল ১৯৭৭) হলেন একজন ভারতীয় অ্যাথলিট। অঞ্জু ববি জর্জ ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন যখন তিনি প্যারিসে ২০০৩ ওয়র্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপস ইন অ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতায় লং জাম্প ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পদক জেতেন। এই গৌরব অর্জনের সঙ্গে সঙ্গে এ পর্যন্ত তিনি হলেন প্রথম কোনো ভারতীয় অ্যাথলিট যিনি একটা ওয়র্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপস ইন অ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতায় ৬.৭০ মিটার লাফিয়ে একটা পদক জিতেছেন।[১] তার এক শ্রেষ্ঠ প্রদর্শনের সাহায্যে তিনি ২০০৫ খ্রিষ্টাব্দে আইএএএফ ওয়র্ল্ড অ্যাথলেটিক্স ফাইনাল প্রতিযোগিতায় সোনার পদক জেতার জন্যে গিয়েছিলেন। ২০০৫ খ্রিষ্টাব্দে মন্টে কার্লোতে ওয়র্ল্ড অ্যাথলেটিক্স ফাইনালে অঞ্জু রুপো থেকে সোনা জেতার পর্যায়ে উন্নীত হন, কেননা, ইন্টারন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন অফ অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন দ্বারা রাশিয়ার তাতিয়ানা কোতোভার অযোগ্যতা প্রমাণ; ২০০৫ খ্রিষ্টাব্দের হেলসিঙ্কি ওয়র্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় ব্যক্তির সম্প্রতি পুনঃপরীক্ষা হয়েছিল।[২] ২০০২ খ্রিষ্টাব্দে অঞ্জু ববি জর্জ অর্জুন পুরস্কারে ভূষিত হন।[৩]

অঞ্জু ববি জর্জ
Anju Boby George in 2006
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম (1977-04-19) ১৯ এপ্রিল ১৯৭৭ (বয়স ৪৭)
Changanassery, Kottayam, Kerala, India
ক্রীড়া
দেশ ভারত
ক্রীড়াAthletics
বিভাগLong jump
Triple jump
সাফল্য ও খেতাব
ব্যক্তিগত সেরাLong jump: 6.83 m NR
(Athens 2004)
Triple jump: 13.67 (Hyderabad 2002)
পদকের তথ্য
30 July 2013 তারিখে হালনাগাদকৃত

২০০৪ এথেন্স অলিম্পিক্স প্রতিযোগিতায় তিনি তার শ্রেষ্ঠ ব্যক্তিগত স্কোর ৬.৮৩ প্রদর্শন করে পঞ্চম স্থান প্রাপ্ত পেয়েছিলেন।.

প্রারম্ভিক জীবন

সম্পাদনা

অঞ্জু ববি জর্জ কেরালার কোট্টায়াম জেলার চাঙ্গানাসারি তালুকের চীরাঞ্চিরা গ্রামে কোচুপারাম্বিল পরিবারে জন্মেছেন, যেটা কে টি মার্কোসে একটা গোঁড়া পরিবার।[৪] তার পিতার কাছে তার অ্যাথলেটিক্সে হাতেখড়ি এবং তার আগ্রহ বৃদ্ধি পায় কোরুথোড়ে স্কুলে তার শিক্ষকের চেষ্টায়। তিনি সিকেএম কোরুথোড়ে স্কুলে পড়াশোনা করেন এবং বিমলা কলেজ থেকে স্নাতক হন। ১৯৯১-৯২ স্কুল অ্যাথলেটিক মিটে তিনি ১০০ মিটার হার্ডলস এবং রিলে রেস জেতেন এবং লং জাম্প ও হাই জাম্প ইভেন্টে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেন, এভাবে তিনি ওমেন্স চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। জাতীয় স্কুল ক্রীড়ায় অঞ্জুর প্রতিভা দেখা গিয়েছিল, যেখানে তিনি ১০০ মিটার হার্ডলস এবং ৪ x ১০০ মিটার রিলে রেসে তৃতীয় স্থান দখল করেন।

পেশাদারি কর্মজীবন

সম্পাদনা

যদিও তিনি হেপ্টাথলন দিয়ে শুরু করেছিলেন, পরবর্তীকালে তিনি তার জাম্প ইভেন্টগুলোতে মনঃসংযোগ করে ১৯৯৬ দিল্লি জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপে লং জাম্পে পদক জিততে মনস্থির করেন। ১৯৯৯ খ্রিষ্টাব্দে বেঙ্গালুরু ফেডারেশন কাপ প্রতিযোগিতায় অঞ্জু ট্রিপল জাম্পএ জাতীয় রেকর্ড করেন এবং নেপাল দক্ষিণ এশীয় ফেডারেশন গেমসে রুপোর পদক লাভ করেন। তিনি ২০০১ খ্রিষ্টাব্দে তিরুবনন্তপুরম ন্যাশনাল সার্কিট মিটে তার নিজের রেকর্ড ভেঙে লং জাম্পে ৬.৭৪ মিটার করেন। ওই বছরই লুধিয়ানা জাতীয় ক্রীড়ায় ট্রিপল জাম্পে অঞ্জু সোনা জেতেন। হায়দরাবাদ জাতীয় ক্রীড়াতেও তিনি তার শ্রেষ্ঠত্ব বজায় রাখেন। ম্যাঞ্চেস্টার শহরে ২০০২ কমনওয়েলথ গেমস প্রতিযোগিতায় তিনি ৬.৪৯ মিটার সম্পূর্ণ করে ব্রোঞ্জ পদক লাভ করেন। বুসান শহরে এশিয়ান গেমস প্রতিযোগিতায় অঞ্জু সোনা জিতেছিলেন।

{{টেমপ্লেট: কাজ চলছে|উইকি লাভস ওমেন ২০১৯ - উইকিপিডিয়া}}

উল্লেখসমূহ

সম্পাদনা
  1. "EVENT REPORT WOMEN LONG JUMP FINAL"। IAAF। ৩০ আগস্ট ২০০৩। 
  2. "IAAF ratifies Anju's top finish in 2005 World Athletics Final"Times of India। PTI। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১৭ 
  3. "Anju Bobby George is now a gold medallist"The Hindu। Chennai, India। ১৪ জানুয়ারি ২০১৪। 
  4. "Anju Bobby George Profile - Anju Bobby George Biography - Indian Athlete Anju Bobby" 

বহির্সংযোগসমূহ

সম্পাদনা