প্রধান মেনু খুলুন

অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান, কল্যাণী

কল্যাণীতে প্রস্তাবিত অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান

অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্স, কল্যাণী বা এইমস কল্যাণী (বাংলা:অখিল ভারতীয় আয়ুর্বিজ্ঞান সংস্থান, কল্যাণি) ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের কল্যাণী শহরে একটি হাই-টেক হাসপাতাল ও মেডিকেল কলেজ। এইমস কল্যাণী পশ্চিমবঙ্গে একটি মেডিক্যাল কলেজ এবং মেডিক্যাল রিসার্চ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়। ইনস্টিটিউটি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় (ভারত) এর অধীনে স্বায়ত্তশাসিতভাবে কাজ করবে। জুন ২০১৪ সালে, কেন্দ্রীয় সরকার কল্যাণীর নিকটবর্তী বসন্তপুর গ্রামে অল ইন্ডিয়া ইন্সটিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সেস প্রতিষ্ঠার জন্য নীতিমালা অনুমোদন দিয়েছে। এই প্রকল্পের রাইগঞ্জে এআইআইএম স্থাপনের পূর্বের পরিকল্পনা থেকে স্থানান্তর করা হয়েছে। প্রকল্পে প্রায় ৮৫০ কোটি (US$১১৮.২৭ মিলিয়ন) কোটি টাকা খরচ হবে। [২]

অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্স, কল্যাণী
অখিল ভারত স্বাস্থবিজ্ঞান সংস্থা, কল্যাণী
এইমস কল্যাণী.jpg
কল্যাণী এইমস-এর প্রবেশ পথ।
ধরনপাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়
বৃত্তিদান১,১২৪ কোটি (US$১৫৬.৪ মিলিয়ন) প্রতি বছর
সভাপতিস্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, ভারত সরকার
পরিচালকদীপিকা ডেকা[১]
শিক্ষায়তনিক কর্মকর্তা
৫৫০
স্নাতক১০০ প্রতি বছর
অবস্থান, ,
২২°৩৫′ উত্তর ৮৮°১৬′ পূর্ব / ২২.৫৮° উত্তর ৮৮.২৬° পূর্ব / 22.58; 88.26
শিক্ষাঙ্গনশহুরে
সংক্ষিপ্ত নামএইমস কল্যাণী

অবস্থানসম্পাদনা

এইমস কল্যাণী ১৮০ একর বিস্তৃত, এলাকায় নিয়ে মেডিক্যাল কলেজ ক্যাম্পাস এবং আবাসিক ক্যাম্পাস গঠিত। এটি পশ্চিমবঙ্গের কল্যাণী শহর থেকে ৩ কিলোমিটার দূরে এবং কলকাতা থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে বসন্তপুর গ্রামে অবস্থিত।[৩] এই স্বাস্থ ও শিক্ষা কেন্দ্রটি কলকাতা মহানগর অঞ্চল-এর অধীনে গড়ে উঠছে।

ইতিহাসসম্পাদনা

২০০৮ সালে রায়গঞ্জে এইমস গঠনের সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র সরকার। পরের বছরই অর্থাৎ ২০০৯ সালে কেন্দ্রীয় সরকার তা বাজেটে অনুমোদন করে৷ এই সিদ্ধান্ত ও ঘোষণার পর পাঁচ বছরে তেমন কিছুই হয় নি। জমি জটে আটকে থাকে এইমস নির্মানের কাজ। ফলে রায়গঞ্জের এইমস হাসপাতাল নির্মান স্তব্দ হয়ে পড়ে। রায়গঞ্জের পানিশালা এলাকার যে ১০০ একর জমিকে এইমসের জন্য চিহ্নিত করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু সেখানে এখনও জমি অধিগ্রহণে প্রশাসন ব্যর্থ হয়। [৪]

২০১১ সালে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন এইমস হাসপাতাল কল্যাণীতে নির্মান করা হবে। কিন্তু এর পড়ের নির্মান কাজ বন্ধ থাকে। ২০১৫ সালে কেন্দ্র সরকার ঘোষণা করে এইমস নির্মিত হবে কল্যাণী শহরে। এর পর ২০১৫ সালে ডিসেম্বর মাসে পশ্চিমবঙ্গ সরকার কেন্দ্র সরকারের কাছে কল্যাণী থেক ৩ কিমি দূরত্বে ১৮০ একর জমি হস্তানান্তর করে। এর পর ২০১৬ সালের এই জমিতে এইমস এর নির্মান শুরু হয়।

নির্মানসম্পাদনা

২০১৫ সালের ডিসেম্বরে রাজ্য সরকার কেন্দ্রীয় সরকারকে বিনামূল্যে জমি হস্তান্তর করে৷ জুলাই মাসের মাঝামাঝি পাঁচিল তৈরি বরাত পায় একটি নির্মাণ সংস্থা৷ ২০১৬ সালের আগোস্ট মাসে চিহ্নিত জমিতে পাঁচিল দেওয়ার কাজ শুরু হয়।[৫]

ইনস্টিটিউটের সীমানা প্রাচীর নির্মাণ ২০১৭ সালের মাঝা মাঝি সময়ে শেষ হয়েছে।[৬]

২০২০ সালের সেপ্টেম্বরের আগেই পশ্চিমবঙ্গের কল্যাণীতে এইমস প্রতিষ্ঠিত হয়ে যাবে। রাজ্যসভায় প্রশ্নোত্তর পর্বে এমনই ঘোষণা করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জে পি নাড্ডা। একইসঙ্গে তিনি জানান, দ্রুত কাজ হচ্ছে বলে এই ধরনের মর্যাদাপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের মান বিন্দুমাত্র ক্ষুন্ন হবে না ও গুণমানের সঙ্গে আপোস করা হবে না। সর্বত্র উচ্চমান বজায় রাখা হবে। তিনি আরও বলেন, সরকারিভাবে যে সময়সীমা নির্ধারিত ছিল, তার অনেক আগেই ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরের মধ্যে এইমস তৈরি হয়ে যাবে।[৭]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Dr Dipika Deka AIIMS Director, West Bengal"। ‌The Assam Tribune। ৭ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  2. "Centre gives nod for AIIMS in Kalyani"। Times of India। ২১ জুন ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৭ 
  3. "Seal on land for AIIMS at Kalyani"। www.telegraphindia.com। ২৫ জুন ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৭ 
  4. "এইমস-রাজনীতি"। ABP Ananda। ২৪ জুলাই ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৭ 
  5. "এইমসের কাজ দ্রুত শেষ হোক, চাইছে কল্যাণী"। এই সময়। ১২ আগস্ট ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৭ 
  6. "কল্যাণীতে দ্রুত এগোচ্ছে এইমসের কাজ"। আজকাল। ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৭ 
  7. "কল্যাণী এইমস তৈরি হতে চলেছে সেপ্টেম্বর ২০২০ সালের আগেই: নাড্ডা"। বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড। ৭ আগস্ট ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা