অক্ষয়কুমার বসু মজুমদার

অক্ষয়কুমার বসু মজুমদার (৯ মে ১৯১৩ – ২৩ নভেম্বর ১৯৯৯) বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও সমাজসেবী ছিলেন।[১][২]

অক্ষয়কুমার বসু মজুমদার
জন্ম( ১৯১৩-০৫-০৯)৯ মে ১৯১৩
সুন্দর গ্রাম বরিশাল, ব্রিটিশ ভারত (বর্তমানে বাংলাদেশ)
মৃত্যু২৩ নভেম্বর ১৯৯৯(1999-11-23) (বয়স ৮৬)
কলকাতা পশ্চিমবঙ্গ
পেশাঅধ্যাপনা ও সমাজসেবা
ভাষাবাংলা
বাসস্থানঠাকুরপুকুর কলকাতা
জাতীয়তাভারতীয়
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়
উল্লেখযোগ্য রচনাবলিদ্য বিউটিয়াস বেঙ্গল
ভারতকবি রবীন্দ্রনাথ
দাম্পত্যসঙ্গীএমিলী বসু মজুমদার
সন্তানস্বাগতা (কন্যা)

স্বাক্ষর

জন্ম ও প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

অক্ষয়কুমার বসু মজুমদারের জন্ম ১৯১৩ খ্রিস্টাব্দের ৯ মে বৃটিশ ভারতের অধুনা বাংলাদেশের বরিশাল জেলার সুন্দরপুর গ্রামে। পিতা নলিনীকান্ত বসু মজুমদার ও মাতা শশীকলা দেবী। অক্ষয়কুমারের প্রাথমিক শিক্ষা শুরু বরিশালে। পরবর্তীকালে বরিশালেরই ব্রজমোহন কলেজ থেকে বি.এ পাশ করেন। উচ্চ শিক্ষার্থে কলকাতায় আসেন এবং কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন।

কর্মজীবনসম্পাদনা

কলকাতার ঠাকুরপুকুরের পঞ্চাননতলার পদ্মপুকুর রোডে স্থায়ী বাসস্থান করে তিনি শিক্ষা, সংস্কৃতি, সমবায়সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিকাশ ও উন্নয়নে সক্রিয় অংশ নেন। স্থানীয় চার-পাঁচটি কলেজের স্থাপনাকাল থেকে তিনি অধ্যাপনা, অধ্যক্ষতা, পরিচালনা ও উন্নয়নের সঙ্গে যুক্ত হন। এছাড়া বহু স্কুল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সোসাইটি প্রভৃতি প্রতিষ্ঠানের স্থাপনা ও পরিচালনার সঙ্গে সরাসরি যুক্ত ছিলেন। বহুবছর ঠাকুরপুকুরের বিবেকানন্দ কলেজে অধ্যাপনা করেন এবং পরবর্তীতে তিনি ওই কলেজের অধ্যক্ষ হন এবং অবসর নেন। তারই উদ্যোগে ওই অঞ্চলের পোষ্ট অফিস ও ব্যাঙ্ক স্থাপিত হয়। এছাড়াও তিনি বেহালা তথা ঠাকুরপুকুর অঞ্চলে সমবায় আন্দোলনের পুরোধা ব্যক্তিত্ব ছিলেন এবং সমবায় সমিতিগুলির পরিচালন পর্ষদে সরকার মনোনীত ব্যক্তি ছিলেন তিনি। বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিকাশ ও উন্নয়নের জন্য সরাসরি যুক্ত থেকেও শিক্ষাসংক্রান্ত বহু প্রবন্ধ ও গ্রন্থ রচনা করেছেন। আশির দশকে কবি জীবনানন্দ দাশের "রূপসী বাংলা" কাব্যগ্রন্থটি ইংরাজীতে দ্য বিউটিয়াস বেঙ্গল শিরোনামে অনুবাদ করেন এবং দেশ বিদেশের পণ্ডিতদের ভূয়সী প্রশংসা লাভ করেন।[৩]

রচিত গ্রন্থাবলিসম্পাদনা

জীবনানন্দ দাশের "রূপসী বাংলা" কাব্যগ্রন্থের ইংরাজী অনুবাদ ছাড়াও কয়েকটি গ্রন্থ রচনা করেন। সেগুলি হল —

  • ভারতকবি রবীন্দ্রনাথ
  • ভারতসাধক মহাত্মা গান্ধী
  • নব-নবীনের কবি নজরুল
  • সংগ্রামী কবি সুকান্ত
  • যে যুগে এসেছিলাম, সে যুগে চলে যাচ্ছি এবং
  • বরিশালের জননেতা শরৎচন্দ্র গুহ [১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. অঞ্জলি বসু সম্পাদিত, সংসদ বাঙালি চরিতাভিধান, দ্বিতীয় খণ্ড, সাহিত্য সংসদ, কলকাতা, জানুয়ারি ২০১৯ পৃষ্ঠা ১, আইএসবিএন ৯৭৮-৮১-৭৯৫৫-২৯২-৬
  2. "Bharatkabi Rabindranath by Akshaykumar Basu Mazumdar"। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৪ 
  3. "The Beauteous Bengal"। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৪